বদলগাছীতে ফেইসবুকে প্রেম” ভালোবাসার শেষ পরিনতি প্রেমিক শ্রীঘরে!!

প্রকাশিত: ২:৪২ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২০

বদলগাছীতে ফেইসবুকে প্রেম”  ভালোবাসার শেষ পরিনতি প্রেমিক শ্রীঘরে!!
          ” দুজন দুই ধর্মের “
বদলগাছীতে প্রেমের টানে  প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা!!
খালিদ হোসেন মিলু  বদলগাছী (নওগাঁ) : নওগাঁর বদলগাছীতে শ্রী চন্দন ভুঁইমালী(১৯) এর বাড়িতে প্রেমের টানে গাইবান্ধার মুসলিম পরিবারের দশম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী(১৫) হাজির হয়েছে। প্রেমিকার উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় প্রেমিক চন্দন। গত সোমবার(১৫ জুন) দুপুর আনুমানিক ১২ টায় আধাইপুর ইউপির সেনপাড়া গ্রামের চন্দনের বাড়িতে আসে এই মেয়েটি। চন্দনের বাবা শ্রী রঞ্জন কুমার ভুঁইমালীর দোকানের সামনে থেকে রাত ৯ টায় পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।
ভুক্তভোগী মাদ্রাসা ছাত্রী জানায়, দেড় বছর আগে ফেইসবুকে চন্দন ভুঁইমালীর সাথে পরিচয় হয় তার। এরপর ফেসবুকেই চলতে থাকে তাদের প্রেম। গত বছরের ২৬ মার্চ বগুড়ায় তারা সাক্ষাত করে। চলতি বছরের ৩মে চন্দনের কোনো এক আত্মীয়ের বাড়িতে হিন্দু রীতিতে মালা বদল করে তাদের বিয়ে হয়। এরপর চন্দনের বিভিন্ন আত্মীয়ের বাড়িতে কয়েক রাত যাপন করে তারা। মেয়েটি চন্দনকে তার বাড়িতে তোলার কথা বললে সে(চন্দন) যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। তাই চন্দনের বাড়ি চলে আসতে বাধ্য হয় মেয়েটি।
এজাহার সূত্রে জানা যায়, দের বছর আগে ফেসবুকে চন্দন ভুঁইমালীর সাথে পরিচয় হয় গাইবান্ধা সদর উপজেলার মালিবাড়ী ইউপির ঐ মাদ্রসা ছাত্রীর। ১৪ জুন চন্দন বদলগাছী ইউপির জিয়ল ফতেজঙ্গপুর গ্রামের আব্দুল মান্নান এর বাড়িতে মেয়েটিকে নিয়ে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ করে। পরের দিন(১৫ জুন) সকালে মেয়েটিকে রেখে চন্দন পালিয়ে যায়। রাত আনুমানিক ৯ টায় পুলিশ চন্দনের বাবা শ্রী রঞ্জন কুমার ভুঁইমালীর দোকানের সামনে থেকে মেয়েটিকে থানায় নিয়ে গিয়ে তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে। মঙ্গলবার(১৬ জুন) বিকেলে পরিবারের লোকজন এসে মেয়েটির মা বাদী হয়ে চন্দনের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে।
বদলগাছী থানার অফিসার ইনর্চাজ চৌধুরী জোবায়ের আহাম্মদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ব্যাপারে চন্দনের বিরুদ্ধে ঐ মেয়ের মা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছে। চন্দন ও মেয়েটিকে আমরা কোর্টে প্রেরণ করেছি।